১০ টি সহজ উপায়ে ফ্রীল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস থেকে ইনকাম করুন

বর্তমানে অনেকেই ফ্রিল্যান্সিং করতে চায়। কিন্তু কোন বিষয়টি নিয়ে কাজ করা উচিত এবং মার্কেটপ্লেসে কোন বিষয়টার চাহিদা রয়েছে তারা সেটা জানে না যেটার কারনে তারা সফল হতে পারছে না। আবার অনেকে রয়েছে যারা কঠিন কাজ করতে পারে না কিন্তু ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে কাজ করতে চাই। তাদের জন্য এই আর্টিকেল আমি ১০ টি কাজ নিয়ে আলোচনা করব যেগুলোর মাধ্যমে আপনারা চাইলে যেকোন ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে কাজ করতে পারবেন।
১/ আর্টিকেল এবং ব্লগ পোস্ট

বর্তমানে দিনদিন ব্লগারের সংখ্যা ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে। যারা ব্লগিংকে যারা পেশা হিসেবে বেছে নিচ্ছে তারা সাধারণত আর্টিকেল কোন এক্সপার্টদের মাধ্যমে লিখে থাকে। বাংলাদেশ একটা আর্টিকেলের দাম কম হলেও বিদেশে যে কোন আর্টিকেল এর দাম ৫ থেকে ১০ ডলার হয়ে থাকে। আপনি যদি ফ্রিল্যান্সিং করতে চান কিন্তু কঠিন কোন কাজ করতে না চান তাদের জন্য আর্টিকেল এবং ব্লগ পোস্ট তৈরি করা খুবই সহজ একটি কাজ হতে পারে। আপনি চাইলেই আর্টিকেল এবং ব্লগ পোস্ট লিখে যেকোনো ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে কাজ করতে পারবেন।

২/ ট্রানসলেশন

বর্তমানে ট্রানসলেশনের চাহিদা অনেক বেশি। বিদেশের যেকোনো দেশে ট্রানসলেশন নিয়ে কয়েক হাজার বেশি কাজ হয়ে থাকে প্রতিদিন। বর্তমানে ট্রানসলেশন নিয়ে ফাইবার প্রায় ২০৫১ জন সেলার রয়েছে যারা প্রতিনিয়ত কয়েক হাজার বেশি কাজ ডেলিভারি দিচ্ছে। আপনি যদি সহজ কোনো কাজ করতে চান তাহলে ট্রানসলেশন হবে আপনার জন্য অন্যতম একটি কাজ।এটি করা খুবই সহজ আপনি চাইলে ট্রানসলেশন শিখে যেকোনো ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে সার্ভিস দিতে পারেন।

৩/ বুক এবং ই বুক রাইটিং

অনেকে হয়তো ভাবছেন বই লেখা নিয়ে এখনো কোন কাজ মার্কেটে আছে কিনা? তাদের জন্য আমি বলছি বই লেখা নিয়ে ফাইবারে বর্তমানে ৮৪১ জন সেলার রয়েছে যারা কয়েকশ এর বেশি কাজ প্রতিদিন সেল দিয়ে থাকে। তাছাড়া বই বিক্রির জন্য বর্তমানে অনেক ইন্টারন্যাশনাল মার্কেট রয়েছে যেখানে তারা বই বিক্রি করে থাকে এজন্য বুক রাইটিং এর জন্য এখন মার্কেটে অনেক কাজ রয়েছে। আপনি চাইলে বুক রাইটিং নিয়ে যেকোন ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে কাজ করতে পারেন।10 Easy Ways to Make Income from Fiber

৪/ জব ডেস্ক্রিপশন

জব দেস্ক্রিপশন নিয়ে বর্তমানে ফাইবারে 141 জন সেলার রয়েছে যারা এ পর্যন্ত কয়েকশরও বেশি কাজ করেছে। বর্তমানে চাকরি ক্ষেত্রে অনেক প্রতিযোগিতা রয়েছে সেজন্য যার জব দেস্ক্রিপশন যত ভালো হবে চাকরির ক্ষেত্রে তার চাকরি পাওয়াটা তথ্য ইজি হবে। এজন্য বাইরের দেশের বেশিরভাগ মানুষ তাদের জব ডেস্ক্রিপশন বিভিন্ন এক্সপার্টদের মাধ্যমে লিখে থাকে। আপনি চাইলে শুধুমাত্র জব ডেস্ক্রিপশন লেখা নিয়ে যেকোন ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে কাজ করতে পারেন।

৫/ লিংকডিইন প্রোফাইল তৈরি

লিংকডইন প্রোফাইল তৈরি করা নিয়ে বর্তমানে ফাইবারে ৯৩৮ জন সেলার রয়েছে। বিভিন্ন দেশের বড় বড় বিজনেসম্যানরা বিভিন্ন এক্সপার্টদের সাহায্য তাদের লিংকডিইন প্রোফাইল তৈরি করে থাকে। একটা লিংকডিইন প্রোফাইল তৈরি করার জন্য তারা কয়েকশো ডলারের বেশি খরচ করে। আপনি চাইলে লিংকডিইন প্রোফাইল তৈরি করা শিখে যেকোনো ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে কাজ করতে পারেন।

৬/ স্ক্রিপ্ট রাইটিং

আপনি যদি নাটক-সিনেমা, উপন্যাস ,রচনায় ইত্যাদি লেখাতে দক্ষ হন তাহলে স্ক্রিপ্ট রাইটিং নিয়ে কাজ করতে পারেন। স্ক্রিপ্ট রাইটিং নিয়ে বর্তমানে ফাইবারে ৪৭৯ জন সেলার রয়েছে। স্ক্রিপ্ট রাইটিং নিয়ে কাজ করার আপনার একটা সুযোগ রয়েছে সেটা হচ্ছে এখানে প্রতিযোগিতা খুবই কম। যেটার ফলে আপনার কাজ পেতে তেমন কোন অসুবিধা হবে না। তাই আমি মনে করি স্ক্রিপ্ট রাইটিং নিয়ে কাজ করা আপনার জন্য খুবই উপযুক্ত একটি সিদ্ধান্ত হবে।

৭/ বিজনেস নেম এবং স্লোগান

বিজনেস নেম এবং স্লোগানে নিয়ে বর্তমানে ফাইবারে ৩৮১ জন সেলার রয়েছে। যারা কয়েকশ এর বেশি কাজ ইতিমধ্যে করেছে। বিজনেস নেম এবং স্লোগান নিয়ে কাজ করা আপনার জন্য একটি উপযুক্ত সিদ্ধান্ত হবে। কেননা এখানে তেমন কোন প্রতিযোগিতার সম্মুখীন আপনাকে হতে হবে না তাছাড়া এই কাজটি খুবই সহজ আপনি চাইলে এ কাজটি করতে পারে।

৮/ রিসার্স এবং সামারিস

রিসার্স এবং সামারিস নিয়ে বর্তমান ফাইবারে ৮৭২ জন সেলার রয়েছে। যারা সবাই ইতিমধ্যে অনেক কাজ করেছে। এই মার্কেটে প্রতিযোগিতা খুবই কম। এখানে কোনো কিছুর উপরে আপনাকে রিসার্স করতে বলা হবে এবং সেটা সামারি আকারে ক্লায়েন্টকে প্রদান করতে বলা হবে। এই কাজটাও খুবই সহজ।আপনি চাইলেই কাজটি করতে পারেন।

৯/ ব্র্যান্ড বয়েজ এবং টোন

বর্তমানে বেশিরভাগ কোম্পানি কিংবা ক্লায়েন্টরা তাদের কোম্পানির জন্য যে সকল বয়েজের প্রয়োজন হয় সেটা তারা ইন্টারন্যাশনাল মার্কেটপ্লেস থেকে নিয়ে থাকে। এজন্য তারা অনেক টাকা খরচ করে থাকে। ফাইবারের বর্তমানে ব্র্যান্ড বয়েজ এবং টোন নিয়ে ৬৩৬ জন সেলার রয়েছে যারা এ পর্যন্ত কয়েকশ এর বেশি কাজ করেছে। এ মার্কেটেও প্রতিযোগিতা অন্যান্য মার্কেটের তুলনায় কম আছে। তাই আপনি চাইলে এই কাজটি করতে পারেন।

১০/ ফেসবুক বিজনেস পেইজ

বর্তমানে সব কোম্পানি তাদের পণ্য সেল করার জন্য ফেসবুক বিজনেস পেইজ খুলে। কারণ বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ার মধ্যে ফেসবুকের চাহিদা সবচেয়ে বেশি। আর ফেসবুক পেইজ থেকে অনেক বেশি সেল হয়ে থাকে যে কারণে সব কোম্পানি তাদের কোম্পানির জন্য ফেসবুক বিজনেস পেইজ খুলে থাকে। তাই আপনি চাইলে ফেসবুক বিজনেস পেইজ খোলার কাজটি করতে পারেন। ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে এর অনেক চাহিদা রয়েছে।

এ আর্টিকেলে আমি আপনাদের সাথে ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে কাজ করার জন্য ১০ টি কাজ শেয়ার করেছি। যেগুলো থেকে যে কোন একটি কাজ নিয়ে আপনি যেকোন ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে কাজ করতে পারেন।

Similar Posts